মতিঝিলসহ ঢাকার ১১ থানার ওসি বদল

0
20

রাজধানীর ৮টি থানার ওসিকে বদলির আদেশ দিয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। এ ছাড়া ক্যাসিনো পরিচালনায় সহায়তা, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের বাড়ি দখল ও চাঁদাবাজির অভিযোগে বদলি করা হয়েছে মতিঝিল, মিরপুর ও কোতোয়ালি থানার ওসিকে। গতকাল মঙ্গলবার ডিএমপি কমিশনার শফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক আদেশে তাদের বদলি করা হয়। আদেশে ভাটারা থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিককে পল্টন থানায়, কলাবাগান থানার ওসি মোহাম্মদ ইয়াসির আরাফাত খানকে মতিঝিল থানায়, খিলক্ষেত থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমানকে মিরপুর থানায়, শ্যামপুর থানার ওসি মিজানুর রহমানকে কোতোয়ালি থানায়, উত্তরা-পূর্ব থানার ওসি পরিতোষ চন্দ্রকে কলাবাগান থানায়, বিমানবন্দর থানার ওসি মোক্তারুজ্জামানকে ভাটারা থানায়, সবুজবাগ থানার ওসি মো. মফিজুল আলমকে শ্যামপুর থানায়, বনানী থানার ওসি মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিনকে খিলক্ষেত থানায় বদলি করা হয়েছে। এ ছাড়া একই আদেশে মতিঝিল থানার ওসি ওমর ফারুককে ঢাকা মহানগর ডিবি উত্তর বিভাগ, মিরপুর থানার ওসি দাদন ফকিরকে ডিবি দক্ষিণ ও কোতোয়ালি থানার ওসি সাহিদুর রহমানকে বদলি করা হয়েছে ডিবি পশ্চিম বিভাগে। এর আগে বিয়ের প্রলোভন ও চাকরি দেওয়ার কথা বলে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে গত সোমবার পল্টন থানার ওসি মাহমুদুল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।সম্প্রতি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে মতিঝিল-দিলকুশার ক্লাবপাড়ায় ক্যাসিনোর আসর বসিয়ে কোটি কোটি টাকা হাতবদলের প্রমাণ পাওয়া যায়। অভিযোগ ওঠে পুলিশের নাকের ডগাতেই দীর্ঘদিন ধরে নির্বিঘেœ এসব অবৈধ ব্যবসা পরিচালনা হচ্ছিল। ফলে এ নিয়েই বদলি হলেন মতিঝিল থানার ওসি ওমর ফারুক। তবে পুলিশের মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি), অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি), সহকারী কমিশনার (এসি) বহাল তবিয়তে রয়েছেন। আর ৩ কোটি টাকা ঘুষ নিয়ে নবাবপুরে এক শহীদ মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি দখলে সহায়তা করেন পুলিশের লালবাগ বিভাগের সাবেক ডিসি ইব্রাহিম খান ও বংশালের ওসি (পরে কোতোয়ালি থানার ওসি) সাহিদুর রহমান। ডিএমপির তদন্তে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ার পর ডিসি ইব্রাহিম খানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তবে পার্শ¦বর্তী কোতোয়ালি থানায় বদলির মাধ্যমে এতদিনে বহাল তবিয়তে ছিলেন ওসি সাহিদুর রহমান। একইভাবে চাঁদাবাজি, হয়রানি, নির্যাতনের মাধ্যমে ঘুষ আদায়ের অভিযোগ আছে মিরপুর থানার ওসি দাদন ফকিরের বিরুদ্ধে। এর আগে পল্লবী থানায় দায়িত্বরত থাকা অবস্থায়ও তার বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ ওঠে।

LEAVE A REPLY