মুজিববর্ষের ক্ষণগণনা : এমপির সামনেই দু’পক্ষের সংঘর্ঘ

0
19

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে মুজিববর্ষের ক্ষণগণনার অনুষ্ঠান চলাকালীন সময়ে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। পরে পুলিশ লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের ১০ থেকে ১২ জন আহত হয়েছেন। পরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার পর পণ্ড হয়ে যায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। আজ শুক্রবার বিকেলে শিবগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত ক্ষণগণনা অনুষ্ঠান শুরু হয়। এ সময় স্থানীয় সংসদ সদস্য (এমপি) ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুলের বক্তব্য শুরু হলে প্রতিপক্ষ উপজেলা চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম গ্রুপের নেতা-কর্মীরা শ্লোগান দিতে থাকে। এতে উভয় পক্ষের বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে শুরু হয় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া।পুলিশ পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করলে পুলিশের ওপরও ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু হয়। এ সময় মঞ্চের সামনে থাকা শতাধিক চেয়ারও ভাঙচুর করতে শুরু করে উভয় পক্ষের লোকজন। একপর্যায়ে পুলিশ সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রথমে লাঠিচার্জ করে এবং পরে রাবার বুলেট ছুড়তে বাধ্য হয়। সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি  জানান, ছোটখাটো গন্ডগোল হওয়ায় আলোচনা সভা বন্ধ হয়ে যায়। অন্যদিকে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আলোচনা সভার স্থানটি ছোট হওয়ায় কারণে লোকজনের স্থান সংকুলান না হওয়ায় সামান্য বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়। এতে কয়েকজন আহত হবার কথা তিনি শুনেছেন বলে জানান। শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) আতিকুল ইসলাম জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রথমে লাঠিচার্জ ও পরে কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়তে বাধ্য হয় পুলিশ। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলেও জানান ‍পুলিশের এই কর্মকর্তা।

LEAVE A REPLY