ইরানের কাছে ক্ষমা-ক্ষতিপূরণ দাবি ইউক্রেন-কানাডার

0
15

তেহরানে ব্যালেস্টিক মিসাইল হামলায় ইউক্রেনের বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় ইরানকে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাওয়ার পাশাপাশি ক্ষতিপূরণ দেওয়ার দাবি জানিয়েছে ইউক্রেন। দেশটির প্রেসিডেন্ট ভোলোদাইমির জেলেনস্কির বিবৃতির বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে তুরস্কভিত্তিক বার্তা সংস্থা আনাদলু এজেন্সি। এ ছাড়াও এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে ইরানকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো।এই দুর্ঘটনার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক পোস্টে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলোদাইমির জেলেনস্কি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক তদন্ত কমিশন কর্তৃক তদন্তের পূর্বেই ইরান দায় স্বীকার করেছে। এই হামলার সুষ্ঠ এবং উন্মুক্ত তদন্ত করে দায়ীদের বিচারের আওতায় আনতে ইরানের সর্বোচ্চ সহযোগিতা আশা করছি। কূটনৈতিক সকল নিয়ম মেনে এই ঘটনার জন্য ইরানকে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাইতে হবে এবং ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।’ এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘ইরান কর্তৃক বিমান বিধ্বস্তের ঘটনাটি আমাদের জন্য একটি জাতীয় বিপর্যয়। আমাদের ৬৩ জন নাগরিক হত্যার জন্য ইরানকে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাওয়ার পাশাপাশি ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।’ ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বুধবার বোয়িং ৭৩৭-৮০০ নামের ওই বিমানটি তেহরানের ইমাম খামেনি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পরেই ইরানের ইসলামিক রেভ্যুলেশনারি গার্ডস ক্রপসের (আইআরজিসি) ব্যালেস্টিক মিসাইল হামলায় বিধ্বস্ত হয়। এই বিমান দুর্ঘটনায় ১৭৬ জন আরোহী নিহত হয়েছে। আরোহীরা ইরান, কানাডা, ইউক্রেন, সুইডেন, জার্মান, আফগানিস্তান এবং ব্রিটেনের নাগরিক ছিলেন। প্রথমে হামলার বিষয়টি অস্বীকার করলেও পরে গতকাল শনিবার দেশটির সামরিক বাহিনীর ভুল হামলায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে স্বীকার করেছে ইরান।

LEAVE A REPLY