মোদির ভাষণে বাংলাদেশি দুই নেতার নাম

0
16

ভারতের লোকসভায় বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর বিতর্কের জবাব দিতে গিয়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দুই প্রয়াত বাঙালি নেতাকে স্মরণ করেছেন। তারা হলেন যশোরের সন্তান ও স্বাধীনতা সংগ্রামী ভূপেন্দ্র কুমার দত্ত আর বরিশালে জন্ম নেওয়া যোগেন্দ্রনাথ মÐল, যিনি দেশভাগের পর পাকিস্তান সরকারের প্রথম আইনমন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু দুজনেরই মৃত্যুর বহু বছর পর ভারতের পার্লামেন্টে কেন আচমকা তাদের প্রসঙ্গ তুললেন প্রধানমন্ত্রী মোদি? আসলে ভ‚পেন দত্ত আর যোগেন মÐল ছিলেন সেই বিরল হিন্দু রাজনীতিবিদদের অন্যতম, যারা দেশভাগের সময় পূর্ব পাকিস্তানে থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। পাকিস্তানের গঠন পর্বে সংবিধান প্রণয়ন বা মন্ত্রিসভাতেও তাদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। কিন্তু সে সময় পাকিস্তান যেভাবে হিন্দু জনগোষ্ঠীকে দেশ থেকে বিতাড়নের নীতি নিয়ে চলছিল, এরা দুজনেই তার প্রতিবাদ করে নিজ নিজ পদ থেকে ইস্তফা দেন। ভ‚পেন্দ্র কুমার দত্ত পাকিস্তানের সংবিধানসভা থেকে, আর যোগেন্দ্রনাথ মÐল সে দেশের প্রথম মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেছিলেন। মোদি তার ভাষণে জানিয়েছেন, ‘পরে তাদের দুজনকেই পূর্ব পাকিস্তান থেকে ভারতে চলে আসতে হয়, আর তাদের মৃত্যুও হয় ভারতেই। পাকিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে আসা ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব দেওয়ার বিধান এনে তার সরকার নতুন যে আইন করেছে, তার স্বপক্ষে সওয়াল করতে গিয়েই মোদি এ দুই নেতার প্রসঙ্গ উল্লেখ করেছেন। পর্যবেক্ষকরা আরও মনে করছেন, ভ‚পেন দত্ত বা যোগেন মÐলের রেফারেন্স দিয়ে মোদি এটাও বোঝাতে চেয়েছেন, বাংলাদেশে তথাকথিত যে হিন্দু নির্যাতনের কথা ভারত বলছে তার ভিত আসলে পূর্ব পাকিস্তান আমলেরই, স্বাধীন বাংলাদেশে তা অতটা প্রাসঙ্গিক নয়। খবর বাংলা ট্রিবিউনের।

LEAVE A REPLY