আমাকে এখন কে দেখবে

ঢাকার সাভারে গার্মেন্টস শ্রমিকদের চলমান আন্দোলনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ চলাকালে গুলিতে নিহত গার্মেন্টস শ্রমিক সুমন মিয়ার (২২) বাড়ি শ্রীবরদী উপজেলার কলাকান্দা গ্রামে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। সুমন ওই গ্রামের আমির আলীর ছেলে। গত মঙ্গলবার ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভারের ওলাইন এলাকায় সে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। এ সংবাদ পাওয়ার পর থেকে তার বাড়িতে শুরু হয়েছে স্বজনদের আহাজারি। সুমনের মা ফেরুজা বেগম বলেন, আমি এখন কীভাবে চলব। কে আমাকে দেখবে।পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সুমনের বাবা ঢাকায় একটি বিস্কুট ফ্যাক্টরিতে শ্রমিকের কাজ করেন। তার মা গৃহিণী। তারা দুই ভাই ও তিন বোন। এর মধ্যে সুমন সবার ছোট। প্রায় দেড় বছর ধরে তিনি ঢাকার সাভারের আনলীমা অ্যাপারেলসে ফিনিশিং সেকশনে কাজ করছিলেন। আনলীমা অ্যাপারেলসের ফিনিশিং সেকশনে সুমনের এক সহকর্মী জানায়, সুমন দুপুরের খাবার বিরতিতে ফ্যাক্টরি থেকে বাসায় যায়। ফেরার পথে সে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে গুলিবিদ্ধ হয়।