ইডেনের সাবেক অধ্যক্ষকে শ্বাসরোধে হত্যা

ইডেন মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মাহফুজা চৌধুরী পারভীনকে (৬৬) তার বাসায় শ্বাসরোধে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে নিউমার্কেট এলাকার সুকন্যা টাওয়ারের ১৬ সি ফ্ল্যাট থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর থেকে স্বপ্না ও রেশমি নামে বাসার দুই গৃহপরিচারিকা পলাতক রয়েছে। এ ছাড়া আলমারিতে থাকা স্বর্ণালঙ্কার, ব্যবহৃত মোবাইল ফোন খোয়া গেছে।ধারণা করা হচ্ছে, পলাতক গৃহপরিচারিকারা স্বর্ণালঙ্কার চুুরির জন্যই এ ঘটনা ঘটিয়েছে।মাহফুজা চৌধুরী পারভীন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাধারণ সম্পাদক ইসমত কাদির গামার স্ত্রী। সুকন্যা টাওয়ারের ওই ডুপ্লেক্স ফ্ল্যাটে তারা স্বামী-স্ত্রী বসবাস করতেন। তাদের বড় ছেলে সেনা কর্মকর্তা ও ছোট ছেলে ব্যাংকার।ইসমত কাদির গামা জানান, দুপুর সাড়ে ৩টার দিকে তার সঙ্গে স্ত্রী মাহফুজার শেষ কথা হয়। সে সময় তিনি জানান, গাড়িচালককে ওই দিনের মতো ছুটি দিয়ে দিয়েছেন। এরপর সন্ধ্যার দিকে তিনি স্ত্রীর মোবাইলে একাধিকবার ফোন দিয়েও তা বন্ধ পান। পরে সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে তিনি বাসায় ফিরে অনেকবার কলিং বেলসহ কড়া নাড়তে থাকেন। কিন্তু সাড়াশব্দ না পেয়ে নিজের ফ্লোরে নেমে আসেন। তখন মধ্যবয়সী পুরনো গৃহপরিচারিকা দরজা খুলে দেন। পরে ভেতরের সিঁড়ি বেয়ে ওপরে উঠে দেখেন খাটের ওপর গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় তার স্ত্রী পড়ে আছেন। সঙ্গে সঙ্গে থানা পুলিশে ফোন দেন। মধ্যবয়সী ওই গৃহপরিচারিকাকে ঘটনার কথা জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানান, দুই গৃহপরিচারিকা স্বপ্না ও রেশমি ওপরের ফ্লোর থেকে নেমে দরজা বন্ধ করে চলে গেছে। পুলিশের রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার মারুফ হোসেন সরদার বলেন, বাসার দুই গৃহকর্মীকে পাওয়া যাচ্ছে না। ধারণা করা হচ্ছে তারাই খুন করেছে। ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত বলা যাবে।