বুড়িগঙ্গায় নৌকাডুবিতে এখনো নিখোঁজ একজন

বুড়িগঙ্গার সদরঘাটে নৌকাডুবিতে শাহিদা বেগম (৩২) নামে আরও একজন নিখোঁজ রয়েছেন। ঘটনার পর থেকেই নিখোঁজ ছয়জনের খোঁজে বিরতিহীনভাবে উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে বিআইডব্লিউটিএ, ফায়ার সার্ভিস, নৌ-পুলিশ, নৌ-বাহিনী ও কোস্টগার্ডের সদস্যরা। আজ শনিবার সকালে উদ্ধার অভিযান শুরু পর এখন পর্যন্ত চারজনের লাশ উদ্ধার করেছে ডুবুরিরা। এর আগে শুক্রবার দুপুরের দিকে এক নারীর ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়। আজ উদ্ধার হওয়া লাশগুলো হলো-মিম (৮) ও মাহীর (৬) নামে দুই বোন। এ ছাড়া দম্পতি জামশেদা বেগম (২০)ও দেলোয়ার হোসেন (২৮) এবং তাদের তিন মাসের মেয়ে স্নেহা। নৌ পুলিশের সদরঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রাজ্জাক বলেন, ‘শনিবার সকাল ৮টার দিকে আহসান মঞ্জিল জাদুঘর বরাবর নদী থেকে মাহীর নামে শিশুটির লাশ পাওয়া যায়।’ এরপর উদ্ধার অভিযান অব্যহত থাকলে আরও চারজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বুড়িগঙ্গার সদরঘাটে সুরভী-৭ নামে একটি লঞ্চের ধাক্কায় নৌকা ডুবে একই পরিবারের ৬ জন নিখোঁজ হয়েছেন। এ সময় লঞ্চের পাখার আঘাতে শাহজালাল মিয়া (৩৫) নামে ওই পরিবারের আরেক ব্যক্তির দুই পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এদিকে নৌদুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখতে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করেছে বিআইডব্লিউটিএ।